শিলাইদহ কুঠিবাড়ি

ধরন: অট্টালিকা
সহযোগিতায়: Nayeem
Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

বিস্তারিত

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (১৮৬১-১৯৪১) প্রায়ই এখানে আসতেন এবং অবস্থান করতেন। তিনি তাঁর জমিদারি তদারকি করার জন্য এখানে অবস্থান করতেন। এখানে অবস্থানকালে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তাঁর লেখনীর মাধ্যমে সাহিত্য চর্চা করতেন। এখানে অবস্থানকালে তিনি অনেক স্মরণীয় কবিতা রচনা করেন। জমিদার হিসেবে স্থানীয় কৃষকদের কাছ থেকে খাজনা আদায়ের জন্য তিনি কুঠিবাড়িকে তাঁর আবাস/দফতর হিসেবে ব্যবহার করতেন। বর্তমানে সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ের প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরের অধীনে কুঠিবাড়িকে একটি জাদুঘর হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে।

কিভাবে যাবেন

ঢাকা থেকে কুষ্টিয়ায় কোন ট্রেন চলাচল করেনা। কুষ্টিয়া শহর থেকে কুঠিবাড়ির দূরত্ব ২২.৮ কিলোমিটার। কুষ্টিয়া থেকে বাস অথবা সিএনজি অটোরিকশায় করে কুঠিবাড়িতে আসতে পারবেন।

কিভাবে পৌঁছাবেন: কুষ্টিয়া জেলা

আপনার সুবিধার্থে ঢাকা থেকে কুষ্টিয়ায় চলাচলকারী বাসগুলো সম্পর্কে কিছু তথ্য নিম্নে প্রদান করা হলঃ
১। এসবি সুপার ডিলাক্স
গাবতলি কাউণ্টার, ফোনঃ ০২-৯০০০৬২৭
ভাড়াঃ ৬০০/- টাকা (শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত), ৪৫০/- টাকা নন এসি
২। শ্যামলী পরিবহন
গাবতলি কাউণ্টার, ফোনঃ ০১৭১১-৯৮৭০২৮

কোথায় থাকবেন

আপনার সুবিধার্থে কুষ্টিয়ায় থাকার জন্য কিছু হোটেল ও গেস্টহাউজ সম্পর্কে নিম্নে তথ্য প্রদান করা হলঃ
• আজমিরী হোটেল, ফোনঃ ৫৩০১২
• দেশা গেস্ট হাউজ, ফোনঃ ০১৭২০৫১০২১২
• হোটেল আল আমিন, ফোনঃ ৫৪১৯৩
• হোটেল গোল্ড স্টার, ফোনঃ ০৭১৬১৬৭৫
• হোটেল রিভার ভিউ, ফোনঃ ০৭১৭১৬৬০

কি করবেন

চমৎকার এই পর্যটন স্পটে একটি দোতলা ভবন রয়েছে। তবে, ভবনের ছাদে একটি কক্ষ রয়েছে যেটিকে কবি পড়ালেখা এবং ধ্যানের জন্য ব্যবহার করতেন। ছাদের উপর অবস্থিত এই কক্ষটি দেখে যে কেউ বিমোহিত হবে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর নিজেই এই কক্ষটিকে একটি পবিত্র স্থান হিসেবে বিবেচনা করতেন। এই কক্ষে তিনি বেশকিছু ছোট গল্প এবং কবিতা রচনা করেছেন।
কুঠিবাড়ি দেখার পাশাপাশি আপনি গড়াই নদী ও সেতু, ঝাউদিয়া সানি মসজিদ, খ্রিষ্টান কবরস্থান, জুগিয়া তাঁতিপাড়া ঘুরে দেখতে পারেন।

খাবার সুবিধা

কুষ্টিয়ায় অল্প খরচে খাওয়ার জন্য বেশকিছু ভাল মানের রেস্টুরেন্ট ও হোটেল রয়েছে।

মানচিত্র

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো দেখুন

অন্যদের ওয়েবসাইট থেকে

Beta Version
কথা বলুন

এই মুহূর্তে অনলাইনে না থাকায় আমরা দুঃখিত! কিন্তু আপনি আমাদের ই-মেইল পাঠাতে পারেন। আমরা ২৪ ঘন্টার মধ্যে আপনার প্রশ্নের উত্তর দেব।

আপনার প্রশ্ন বা সমস্যার সহযোগিতা করায় আমরা সর্বদা তৎপর!

ENTER ক্লিক করুন