Radha Krishna and Shiva Kali Temple

ধরন: মন্দির
সহযোগিতায়:
Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

বিস্তারিত

Radha Krishna and Shiva Kali Temple is a Hindu religious Architecture situated in Munshiganj Sadar, which is very near to destruction.About 100 years old (now rebuilt) Radha-Krishna Temple and the other one is about 190 years old (locally informed) Shiva temple at Atpara, Sukhbaspur, Munshiganj Sadar Upazila. Adjacent to this temple there are two more temples which appear to have been erected recently. It is a ‘Pancha ratna’ temple resting on a square sanctum. Its south-east corner ratna along with large portion of the body is missing.

Architectural property of Temple:

The four turrets are set on the roof top corners while the large fifth central sikhara rises above those. The wall of the temple is 63cm thick. The temple has sharply curved cornices and an arched shape entrance on the south but its lower portion is in a dilapidated condition.

The char-Chala central ratna rests upon its rectangular base which has an arched entrance and panel decoration. The south and other sides are relieved with imitation doorway design and paneled bands. The central tapering tower rises above and terminates in an iron shike. The four miniature corner turrets are similar to the central one and have four openings each.This variety is the most popular type of temples that flourished in Bengal in the 19th century AD.


কিভাবে যাবেন

From Muktarpur Bus stand it is easy to reach at the temple. If anybody wants to go there, then it would be easier if riding on a Bus or Auto rickshaw moving towards Tongi Bari Upazila. On the way to Tongibari you have to inform the driver that you are going to step off at Atpara village.

কিভাবে পৌঁছাবেন: মুন্সীগঞ্জ জেলা

ঢাকা থেকে মুন্সীগঞ্জে বেশকিছু বাস চলাচল করে। এসব বাসের মধ্যে সবচেয়ে ভালমানের হল ঢাকার গুলিস্তান থেকে ছেড়ে যাওয়া ‘নয়ন পরিবহন’ এবং ‘ঢাকা ট্রান্সপোর্ট’। ৩০/- টাকা থেকে ৪০/- টাকা ভাড়ায় দুই ঘণ্টার মধ্যে আপনি মুন্সীগঞ্জে পৌছাতে পারবেন। এছাড়া ঢাকার পোস্তগোলা থেকে ‘গাংচিল’ নামে একটি বাস মুন্সীগঞ্জের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়।
এছাড়া পোস্তগোলা থেকে সিএনজি অটোরিকশায় ২৫০/- টাকা থেকে ৩৫০/- টাকা ভাড়ায় আপনি মুক্তারপুর সেতুতে পৌছাতে পারবেন। তবে, সিএনজি অটোরিকশা ভাড়া করলে সেতুর টোল ২০/- টাকা কে পরিশোধ করবে এই বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে নিন।

কোথায় থাকবেন

ঢাকার পাশেই অবস্থিত হওয়ার পরও মুন্সীগঞ্জ জেলায় থাকার জন্য ভালমানের হোটেল খুঁজে পাওয়া কঠিন। ঢাকা থেকে এখানে এসে মানুষ ঐদিনই ফিরে যেতো। তবে মুন্সীগঞ্জ শহরে থাকতে হলে আপনি ‘হোটেল কমফোরটে উঠতে পারেন। এছাড়া হোটেল থ্রি স্টার ইন্টারন্যাশনালেও উঠতে পারেন তবে এই হোটেলের কক্ষের মান তেমন উন্নত নয়। উভয় হোটেলেই কক্ষের মানভেদে ভাড়া পরবে ১০০/- টাকা থেকে ৭০০/- টাকা। মুন্সীগঞ্জ ও এই জেলার আশেপাশে অবস্থিত কিছু হোটেল, গেস্ট হাউজ ও রিসোর্ট সম্পর্কে তথ্য নিম্নে প্রদান করা হলঃ
১। মাওয়া রিসোর্ট
যোগাযোগঃ মোঃ আলী
ফোনঃ ০১৭১১৬৭৬০৫৮

২। পদ্মা রিসোর্ট
যোগাযোগঃ মোঃ আলী
ফোনঃ ০১৭১৩০৩৩০৪৯

৩। পদ্মা রেস্ট হাউজ
যোগাযোগঃ নির্বাহী প্রকৌশলী
সেতু বিভাগ, সড়ক ও যোগাযোগ মন্ত্রনালয়
ফোনঃ ০১৭১৫৫৬১৯৩৩

কি করবেন

  • Observe the decaying process of this temple
  • Experience the life style and praying at temple by Hindu Religious people

খাবার সুবিধা

Referred where to eat in Munshiganj. Click here

মানচিত্র

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কথা বলুন

এই মুহূর্তে অনলাইনে না থাকায় আমরা দুঃখিত! কিন্তু আপনি আমাদের ই-মেইল পাঠাতে পারেন। আমরা ২৪ ঘন্টার মধ্যে আপনার প্রশ্নের উত্তর দেব।

আপনার প্রশ্ন বা সমস্যার সহযোগিতা করায় আমরা সর্বদা তৎপর!

ENTER ক্লিক করুন