Nawab Faizunnesa Chowdhurani and Nawab Bari

ধরন: প্রাসাদ
সহযোগিতায়: Nayeem
Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

বিস্তারিত

Nawab Faizunnesa Choudhurani (1834–1903) was Zamindar of Homnabad-Pashchimgaon Estate in present-day Comilla District, Bangladesh. She is most famous for her campaign for female education and other social issues. In appreciation of her social work, in 1889 Queen Victoria awarded Faizunnesa the title of “Nawab”, making her the first female Nawab in South Asia.

Early life and background: Nawab Faizunnesa Chowdhurani was born in 1834 in the village of Pashchimgaon under Laksham in the district of Comilla. Her father was Ahmed Ali Chowdhury, a descendent of the Mughal emperors and zamindar of Homnabad-Pashchimgaon estate. Faizunnessa was raised in a conservative Muslim family, where the women would maintain a strict purdah system. She received no formal education but she educated herself in her library during leisure time. She was proficient in Arabic, Persian, Sanskrit and Bengali language. In 1860, Faizunnesa was married to a distant cousin and neighboring Zamindar, Muhammad Gazi, becoming his second wife. But the couple became separated for an unknown reason and Faizunnesa began to live with her paternal family.

Career and philanthropy: After her mother’s death in 1883, Faizunnesa inherited her property and became Zamindar of Pashchimgaon. She became increasingly involved in social work after becoming Zamindar. In 1873, Faizunnesa Choudhurani established a high school for girls in Comilla, which is one of the earliest female schools privately established in Indian subcontinent, which is now called Nawab Faizunnesa Government Girls’ High School. She also founded a school at Pashchimgaon that was later upgraded to a college and now named as Nawab Faizunnesa Degree College.

In 1893, Faizunnesa established a charitable dispensary in her village for women in purdah, particularly destitute women. She also built a hospital for women, Faizunnesa Zenana Hospital in Comilla. In addition, she built mosques and contributed towards the development of roads and ponds. Faizunnesa patronized different newspapers and periodicals, including Bandhab, Dhaka Prakash, Musalman Bandhu, Sudhakar, and Islam Pracharak. Before her death in 1903 she donated her entire property to the nation.


কিভাবে যাবেন

This spot is located in Laksam. So, after reaching at Comilla, take local buses to reach Laksam Upazila at Pashchimgaon Village. Take rickshaw to reach that place.

কিভাবে পৌঁছাবেন: কুমিল্লা জেলা

কুমিল্লার সাথে সারাদেশের রয়েছে চমৎকার পরিবহন ও যোগাযোগ ব্যবস্থা। ঢাকা থেকে সড়ক ও রেলপথে কুমিল্লায় যাওয়া যায়। কুমিল্লায় একটি বিমানবন্দর থাকলেও বর্তমানে এটি ব্যবহৃত হচ্ছে না।

ঢাকা থেকে কুমিল্লার দূরত্ব ৯৭ কিলোমিটার। আপনি বাসে করে সড়কপথে কুমিল্লায় পৌছাতে পারবেন। আপনার সুবিধার্থে কুমিল্লায় চলাচলকারী বাসগুলো সম্পর্কে নিম্নে তথ্য প্রদান করা হলঃ
১। উপকুল রয়্যাল
কমলাপুর বাসস্ট্যান্ড
যোগাযোগঃ ০১৯৮১-০০২৯৩২, ০১৯৮১-০০২৯৪২
২। তিশা
সায়েদাবাদ বাসস্ট্যান্ড
যোগাযোগঃ ০১৭৩১-২১৭৩২২
৩। বিআরটিসি
কমলাপুর বাসস্ট্যান্ড
যোগাযোগঃ ০১৭৭০-৪৯৩৭৭৫
৪। প্রাইম সার্ভিস
হ্যাচেল রোড
যোগাযোগঃ ০২-৯৫৫৪৪৯৬
সকাল ৬:১৫ মিনিট থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রতি ১৫ মিনিটে কুমিল্লার উদ্দেশ্যে বাস ছেড়ে যায়।
বাস ভাড়াঃ প্রায় ২২০/-টাকা

ঢাকা থেকে চট্রগ্রামগামী ট্রেনে করে কুমিল্লায় পৌছাতে পারবেন। ঢাকা থেকে প্রতিদিন একাধিক ট্রেন কুমিল্লা হয়ে চট্রগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। কুমিল্লায় যাওয়ার জন্য ট্রেনের মধ্যে রয়েছেঃ
মহানগর প্রভাতি
ছাড়ার সময়: সকাল ৭:৪০ মিনিট
পৌঁছানোর সময়ঃ দুপুর ২৩০ মিনিট
ট্রেনে করে প্রায় আড়াই ঘণ্টায় কুমিল্লায় পৌঁছে যাবেন।

কোথায় থাকবেন

আপনার সুবিধার্থে কুমিল্লায় থাকার জন্য কিছু হোটেল ও গেস্টহাউজ সম্পর্কে নিম্নে তথ্য প্রদান করা হলঃ
১। আশিক রেসিডেনসিয়াল রেস্ট হাউজ
ঠিকানাঃ ১৮৬, নজরুল এভিনিউ কুমিল্লা
যোগাযোগঃ ৬৮৭৮১
২। হোটেল আবেদিন
ঠিকানাঃ স্টেশন রোড কুমিল্লা
যোগাযোগঃ ৭৬০১৪
৩।হোটেল নুরজাহান
ঠিকানাঃ ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়ক, কুমিল্লা
যোগাযোগঃ ৬৮৭৩৭
৪। হোটেল সোনালি
ঠিকানাঃ কান্দিরপাড় চত্বর, কুমিল্লা
যোগাযোগঃ ৬৩১৮৮

খাবার সুবিধা

Referred to where to eat in Comilla, click here

মানচিত্র

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কথা বলুন

এই মুহূর্তে অনলাইনে না থাকায় আমরা দুঃখিত! কিন্তু আপনি আমাদের ই-মেইল পাঠাতে পারেন। আমরা ২৪ ঘন্টার মধ্যে আপনার প্রশ্নের উত্তর দেব।

আপনার প্রশ্ন বা সমস্যার সহযোগিতা করায় আমরা সর্বদা তৎপর!

ENTER ক্লিক করুন