Gandhi Ashram Trust

ধরন: যাদুঘর
সহযোগিতায়: Nayeem
Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

বিস্তারিত

Mahatma Karamchand Gandhi, the father of India, was the pioneer of the liberation movement of India from the British Empire. He visited Noakhali in 1946 and the place he lived is now turned into a memorial complex situated 25 kilometers away from the Noakhali District.

The very brief history of India: In 1946, just before the liberation of Pakistan from India, there were some social anarchy began in the undivided India. At that time, he decided to visit different places where the massacre started. According to his plan, he visited Noakhali and gave a peace speech. Gandhi was interested to set up a technical training institute at “Joyag” area for the rural uneducated people because he believed that only education can change the mind of a man and keep themselves away from being involved in crimes like killing/looting etc. At that time, a local lawyer, named Hemanta Kumar invited him to stay at his home. Hemanta was believed as the first barrister in this region on that time. He donated his land and building to Gandhiji and Gandhiji was pleased to him too. Gandhi used to drink only goat milk and he always carried a goat with his team. One night, the goat of Gandhi was stolen from the complex. After that he returned to Bihar (India) but willing to come again to continue the activities of the vocational training center. After that, Pakistan got independence from India. In 1948, Mahatma Gandhi was assassinated by fire and never managed to came back to Noakhali before his death. That was his only visit. In 1971, the east part of Pakistan declared themselves independent and named Bangladesh. Noakhali belongs to Bangladesh now. The Institute is now running autonomously in collaboration with the Bangladesh government.

Current Condition of Gandhi Ashram Trust: After his death, the Pakistani government tried to destroy his memories and work. The Pakistanis always hated Gandhi and all the Hindu people. During the period of 1947-1971, Pakistani people and their supporters forced Hindus to settle in India and destroyed their properties. After 1971, the Independent country Bangladesh began to preserve his history. The Vocational instituted was then named “Gandhi Ashram Trust” and started to serve local rural people. But now after 2000, the training activities started to decline. People are much more interested to move towards to a city now. Now the building is converted into a museum where lots of photos of Gandhi’s earlier life is found.

The Ashram Trust is located in Joyag, Sonaimuri, Noakhali district. It is actually situated at Noakhali – Ramganj (Laksmipur) highway. There are some other branches of Gandhi Ashram are established to achieve the mission of Mahatma Gandhi in many different districts of Bangladesh. But actually the historical place where Gandhi resided in Bangladesh is in Noakhali.


কিভাবে যাবেন

From Maijdi/Choumohoni a Bus moving toward Ramganj which has stoppage at Joyag. From joyag you can hire a Rickshaw to the trust or you may walk.

কিভাবে পৌঁছাবেন: নোয়াখালী জেলা

পর্যটকদের জন্য এক অনন্য গন্তব্য নোয়াখালী দেশের দক্ষিণ-পূর্ব অংশে অবস্থিত। অপূর্ব এই জেলাটির উত্তরে কুমিল্লা জেলা ও মেঘনা নদী, দক্ষিনে মেঘনা নদী ও বঙ্গোপসাগর, পূর্বে ফেনী ও চট্রগ্রাম জেলা এবং পশ্চিমে ভোলা ও লক্ষ্মীপুর জেলা অবস্থিত।

ঢাকা ও নোয়াখালীর মধ্যে সড়কপথে যোগাযোগ ব্যবস্থা রয়েছে। আপনি বাসে করে নোয়াখালীতে পৌছাতে পারবেন। ঢাকা ও নোয়াখালীর মধ্যে চলাচল করা কয়েকটি বাস সম্পর্কে তথ্য আপনার সুবিধার্থে নিম্নে প্রদান করা হলোঃ
১। একুশে পরিবহন
যোগাযোগঃ ০১৬৭৮০৪৭৩৮২
প্রস্থানের সময়ঃ
মিরপুর থেকে ভোর ৬টায়, জিগাতলা থেকে সকাল ৬:৩০ মিনিটে, সায়েদাবাদ থেকে সকাল ৭টা এবং ৭:৩০ মিনিটে;
ভাড়াঃ ২০০/-টাকা
২। বিলাস
যোগাযোগঃ ০১৭১২৬৯৩৮৩৬ (সায়েদাবাদ কাউণ্টার)
সকাল ৭:১৫ মিনিট থেকে রাত ৮:৩০ মিনিট পর্যন্ত প্রতি ১৫ মিনিট পরপর বাস ছেড়ে যায়। ভাড়াঃ ২০০/- টাকা;
২। শাহী
যোগাযোগঃ ০১৯১৩৬২৮০৩৮
প্রস্থানের সময়ঃ
সায়েদাবাদঃ সকাল ৬:৪০ মিনিটে এবং সকাল ৭:৪০ মিনিটে
জিগাতলাঃ সকাল ৫:৪০ মিনিটে

কোথায় থাকবেন

আপনার সুবিধার্থে গাজীপুরে থাকার জন্য হোটেল এবং গেস্টহাউজ সম্পর্কে কিছু তথ্য নিম্নে প্রদান করা হলোঃ
১। পুবালি হোটেল
ঠিকানাঃ প্রধান সড়ক, (পৌরকল্যাণ হাই স্কুল), মাইজদিকোর্ট, নোয়াখালী
যোগাযোগঃ ০৩২১-৬১২৫৭
২। হোটেল আল মোরশেদ
ঠিকানাঃ প্রধান সড়ক, (জামে মসজিদের মোড়), মাইজদি কোর্ট, নোয়াখালী
যোগাযোগঃ ০৩২১-৬২১৭৩
৩। হোটেল রাফসান
ঠিকানাঃ প্রধান সড়ক, মাইজদিকোর্ট, নোয়াখালী
যোগাযোগঃ ০৩২১-৬১৩৯৫

কি করবেন

You can visit the “Jiner Mosjid”(জীনের মসজিদ) in Ramganj, Laksmipur.

খাবার সুবিধা

Referred to where to eat in Noakhali, click here

মানচিত্র

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কথা বলুন

এই মুহূর্তে অনলাইনে না থাকায় আমরা দুঃখিত! কিন্তু আপনি আমাদের ই-মেইল পাঠাতে পারেন। আমরা ২৪ ঘন্টার মধ্যে আপনার প্রশ্নের উত্তর দেব।

আপনার প্রশ্ন বা সমস্যার সহযোগিতা করায় আমরা সর্বদা তৎপর!

ENTER ক্লিক করুন